পাবনার সাঁথিয়ায় আ’লীগের দু’গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, নিহত ১

21

জেলা প্রতিনিধিঃ

পাবনার সাঁথিয়ায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে একজন নিহত ও চারজন আহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার গৌরীগ্রাম ইউনিয়নের ঘুঘুদহ পূর্বপাড়া গ্রামে।

নিহত ব্যক্তি আলহাজ শেখ (২৪) ঘুঘুদহ গ্রামের মানিক শেখের ছেলে। আহতরা হচ্ছেন- নিহতের ভাই জেলহক শেখ (২০), একই গ্রামের মতিউর রহমান (৩০), রবিউল ইসলাম (২৫), আব্দুল বাতেন (৩৭), আব্দুল খালেক (১৯)।

আহতদের সাঁথিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় মতিউর রহমানকে এবং লাশ দেখে স্ট্রোক করা খালেককে পাবনা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি গৌরীগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। ঘটনাস্থলে সরবেশ মোল্লা গ্রুপ ও মোসলেম মাস্টার গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলে কাউন্সিল স্থগিত করা হয়। ২৯ মার্চ আওয়ামী লীগ উপজেলা কার্যালয়ে বসে সরবেশ মোল্লাকে সভাপতি করে কাউন্সিলের কমিটি ঘোষণা দেয়া হয়। এ নিয়ে ঘুঘুদহ এলাকায় দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা চলতে থাকে।

এরই জেরে বৃহস্পতিবার বিভিন্ন অজুহাতে দুই গ্রুপ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষে অস্ত্রাঘাতে গুরুতর আহত আলহাজ শেখকে সাঁথিয়া হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এএসপি সার্কেল জিল্লুর রহমান ও সাঁথিয়া থানার ওসি আসিক মোহা. সিদ্দিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে সংঘর্ষে ব্যবহৃত লাঠি, ফালা, তীর-ধনুকসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেন।

এএসপি সার্কেল জানান, নিজেদের অভ্যন্তরীণ নেতৃত্বের কোন্দলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। মামলার প্রক্রিয়া চলছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৩ জনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।