পীরগঞ্জে দুই সন্তানের মা নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

43

মোঃ ফরিদ হোসাইন মাসুম ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার ১০ নং জাবারহাট ইউনিয়নের আগে বড় বাড়ি গ্রামে গৃহবধূ রীতা রানী নিজ ঘরের শরের রশি দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

৮ ই এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ ঘটিকায় নিজ ঘরে আত্মহত্যা করেন গৃহবধূ রীতা রানী(২৫ ) । নিহতের মা কমলা রানী জানান ঘরের দরজা খুলে প্রবেশ করলে দেখে তার মেয়ের ঝুলন্ত লাশ, তা দেখে চিৎকার দিলে নিহতের স্বামী সুষেন চন্দ্র রায় ( ৩২) ঘরে প্রবেশ করেন এলাকাবাসী জড়ো হলে কে বা কাহারা পীরগঞ্জ থানায় ফোন দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

আমি নিজ ঘটনাস্থলে গিয়ে এলাকাবাসী প্রমূখ সূত্রে জানতে পারি নিহত রীতা রানী প্রায় দুই মাস যাবত অসুস্থ ছিলেন ।নিহত গৃহবধূর দুটি মেয়ে সন্তান রয়েছে, একমাস যাবত চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাপের বাসায় ছিলেন গত ৫ ই এপ্রিল রবিবার স্বামীর বাসায় ধর্মীয় অনুষ্ঠানে কারনে তার মাকে সঙ্গে নিয়ে আসেন আজ অনুষ্ঠানের শেষে দুপুর১২ ঘটিকায় রশি দিয়ে নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। কিন্তু কেনো আত্মহত্যা করলো এ বিষয়ে জানতে চাইলে কেউ বলতে পারেনা।

পুলিশ সূত্রে জানা যায় নিহত রীতা রানী বাপের বাড়ি রানিশংকৈল ধর্মপাড়া পিতা বিমল চন্দ্র রায় মাতা কমলা রাণী।

ঘটনার বিষয়ে পীরগঞ্জ থানার এসআই কামাল হোসেনের সাথে কথা বলে জানা যায়
গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার বিষয়টি নিয়ে এলাকার জনমনে সন্দেহ দেখা দিয়েছে তাই ঠাকুরগাঁও ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ( পীরগঞ্জ সার্কেল এসপি )আসান হাবিব ।