ঢাকাবৃহস্পতিবার ১১ই আগস্ট ২০২২
প্রিয়তমার প্রতি খোলা চিঠি — সিয়াম সরকার জান। | Doinik Astha
ঢাকাবৃহস্পতিবার ১১ই আগস্ট ২০২২

আজকের সর্বশেষ সবখবর

প্রিয়তমার প্রতি খোলা চিঠি — সিয়াম সরকার জান।

News Editor
জুলাই ১৩, ২০২২ ১০:২৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আজ ১৩ই জুলাই, ২০২২। তোমার কী মনে পড়ে প্রিয়তমা সেই ২০১৭ সালের ১৩ই জুলাই বৃহস্পতিবারের কথা? সেদিন তোমার সাথে আমার প্রথম কথা হয়েছিলো। আজকের মতোই রোদেলা ছিলো সেই দিনটা। তুমি স্কুল থেকে বেরিয়েছিলে, আমি লজ্জা শরম ভুলে গিয়ে তোমাকে ডাক দিয়েছিলাম। সেই দিনই তোমার সাথে আমার প্রথম কথা হয়েছিলো। আমি আজও ভুলি নি, কখনো ভুলবো না। আমার কাছে এই তারিখগুলোর মূল্য অনেক অনেক অনেক বেশী।

আজ তোমাকে খুব মনে পড়ছে। আমি জানি, আমি তোমাকে কখনোই ভুলতে পারবো না। তুমিও জানো, তুমি আমাকে কখনোই ভুলতে পারবে না। প্রথম দেখার পর থেকে আজকের এই মুহূর্ত পর্যন্ত একদিনও তোমার নাম ভুলি নি।শেষ নিঃশ্বাসের আগ পর্যন্ত ভুলবো না। তোমাকে ভুলে থাকা আমার পক্ষে সম্ভব না। তোমাকে ভুলে থাকা মানে আমি মৃত।

প্রিয়তমা, আমার কাছে তুমি নারী নও, তুমি দেবী। তুমি আমার জীবনের স্বরস্বতী দেবী। তোমাকে দেখার পর থেকেই আমি অসাধারণ হতে শুরু করেছি। যদিও জন্মের পর থেকেই আমি আনকমন কিন্তু তুমি আমার বিশাল অপূর্ণতায় এনে দিয়েছো পূর্ণতার স্বর্গীয় আলো। আমি তোমাকে কখনোই ভুলতে পারবো না। তুমিও আমাকে কখনোই ভুলতে পারবো না। তোমার আমার ভালোবাসা কোনো সাধারণ ভালোবাসা না, ব্যাপারটা তুমিও জানো আমিও জানি খুব ভালো করেই৷

প্রিয়তমা, আমি বিশ্বাস করি, সত্যিকারের ভালোবাসা জীবনে একবারই আসে যদি তা অপ্রকাশিত বা প্রকাশিত হয়-ও। ভালোবাসা জীবনে একবারই আসে। বারবার যা আসে তা হয় তামাশা নয় নষ্টামি। তামাশা বা নষ্টামির মানুষ আর ভালোবাসার মানুষ এক না। যেখানে পবিত্র ভালোবাসা অসহায় সেখানে যদি কোনো বিরহ কাতর মাতাল প্রেমিক কোনো এক বেশ্যার বুকে মাথা রেখে শোনায় প্রেমের কবিতা তবে তার মানে এই না যে মাতাল প্রেমিক বেশ্যাকে ভালোবেসে ফেলেছে। এ যে বিষন্ন প্রেমিকের যন্ত্রণার বহিঃপ্রকাশ, যার জন্য সে বেশ্যাকে দেয় ডাবল প্রাইস। অথচ ভালোবাসায় কোনো লেনাদেনা নেই। কিছু কিছু ক্ষেত্রে বেশ্যার প্রলোভনে বিরহী প্রেমিক ভালোবাসাকে বিগত জীবনের ভুল ভেবে ভুল করে বসে। কিন্তু এই ভুল ভাবনাটা খুব একটা দীর্ঘস্থায়ী না, সেই কান্না মিথ্যে কান্না, সেই হাসি মিথ্যা হাসি, সেই রক্তক্ষরণ সেই পরিশ্রম মিছে ও বৃথা, অবশ্যই সাময়িক প্রয়োজন। ভালোবাসা জীবনে একবারই আসে। প্রিয়তমা, আমার জীবনে তুমিই ভালোবাসার অনন্য নাম।কাছে থেকে তোমাকে ভালোবাসার তেমন কোনো অভিলাষ আমার নেই কেননা তুমি কাছে নারীর প্রতিমা নও তুমি আমার দেবী। আমি নিরবে নিরবে তোমার আরাধনা করে যাবো আমৃত্যু নিভৃত প্রেমের আলোআঁধারির মন্দিরে।

প্রিয়তমা, বিশ্বাস করো, আমি তোমাকে ছুঁয়ে দেখতে চাই না, তুমি যে দেবী। আমি তোমার সাথে মধ্য রাত পর্যন্ত কথা বলতে চাই না, তুমি যে দেবী। আমি তোমাকে প্রতিদিন চোখের দেখা দেখতে চাই না, তুমি যে দেবী।

প্রিয়দেবী, তুমি আমাকে যা দিয়েছো তা তে এক বিন্দু মিথ্যের আশ্রয় নেই। তোমার এক ইশারা আমাকে অনেক অনেক অনেক উপরে অবস্থান দিয়েছে, তুমি যে দেবী। এটা কোনো সাধারণ মেয়ের পক্ষে সম্ভব না। তুমি আমাকে অনন্ত রহস্যময় করেছো, তুমি আমাকে করেছো জোছনার যাত্রী, তুমি যে দেবী, আমার প্রথম ও শেষ ভালোবাসা, জীবনের স্বরস্বতী দেবী।

প্রিয়দেবী, তোমার কী মনে পড়ে হাত কেঁটে লিখেছিলাম তোমার নামের প্রথম অক্ষর, রক্ত মেখে লিখেছিলাম শুভকামনার চিঠি? সেই চিঠির হার্ডকপি আমার কাছে আজ নেই। আমি চাই না যে, আমার টেবিল হাতড়ে কেউ তোমার নাম বা তোমার কিছু জানতে পাক। আমার নগ্ন দেহ দেখে কেউ স্পষ্ট দেখতে পারুক তোমার নামের প্রথম অক্ষর। আমার কষ্ট দেখে কেউ তোমাকে দোষী করুক, আমি চাই না। ঠিক এই কারণে সেই মাংস খোদাই করা প্রথম অক্ষরের উপরে ও চারপাশে আরও দাগ দিয়েছি যাতে স্পষ্ট বোঝা না যায় । তোমার পুরো নামটা মোট বারো অক্ষরে গঠিত। বারোর দ্বিগুণ মানে চব্বিশ ক্ষততে অস্পষ্ট করেছি তিন রেখায় গঠিত তোমার নামের প্রথম অক্ষর, দুই কিস্তিতে প্রথমে সতেরো পরে সাত। আমি চাই না, আমার পাগলামির জন্য কেউ আমার দেবীকে দায়ী করুক। তুমি আমার বিষন্নতার কারণ নও, তুমি আমার সফলতার কারণ। তোমাকে দেখানোর জন্যই আমি গান লেখা শুরু করেছিলাম। ২০১৭ সালের ২৩ই নভেম্বরে আমার লেখা প্রথম গান প্রকাশিত হয়েছিলো, সেদিনও তোমার চোহারা দেখেছিলেম বলেই…..
তোমায় এক নজর দেখার জন্য রোদ বৃষ্টি উপেক্ষা করে চলে যেতাম সেই প্রিয় এলাকায়, আমার কানে বাজতো তখন স্করপিয়নসের গান।দ্য বিটলস, স্করপিয়ন্স, বব মার্লে, বন জভি, ব্রায়ান এ্যাডামস, বব ডিলান, এরিক ক্ল্যাপটনের গানের সুরে সুরে তোমাকে খুঁজে পেতাম, আজও পাই, আমৃত্যু পেয়ে যাবো।

আরো পড়ুন :  ছেলে সন্তানের মা হলেন চিত্রনায়িকা পরীমনি।

প্রিয়দেবী, তোমাকে দেখলে আমি ভয়ানকভাবে নার্ভাস হয়ে যেতাম, যেখানে আমার কপালে কেউ পিস্তল ঠেকালেও আমি বিন্দু মাত্র নার্ভাস হই না বরং পিস্তল ঘুরিয়ে দেই, কিন্তু তোমাকে
দেখলে আমি মারাত্মকভাবে নিথর হয়ে যেতাম, হাঁটতে কষ্ট হতো যার কারণে স্বাভাবিক হবার জন্য সিগারেট ধরিয়ে ফেলতাম। সিগারেট টানতাম আর অবাক বিস্ময়ে তোমাকে দেখতাম। তোমাকে এক নজর দেখার জন্য ফাঁকি দিয়েছিলাম আমার কলেজ জীবনের প্রথম ক্লাস। তোমাকে এক পলক দেখে যে শিক্ষা আমি নিতে পারি তা এই মহাপৃথিবীর সেরা বিশ্ববিদ্যালয় আমাকে দিতে অক্ষম। তুমি আমার সুপ্ত সৃষ্টিশীলতার শ্রেষ্ঠ জাগরণ ঘটিয়েছো প্রিয়দেবী।

প্রিয়তমা, তোমাকে না পেলেও আমার কোনো আক্ষেপ নেই। আমি আমৃত্যু তোমার আরাধনা করে যেতে চাই, এটা আমি করবো। আমার সৃষ্টি আর সফলতায় প্রকাশিত হবে তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা। আমার আফসোস, আমাকে তুমি অনন্য করেছো বিনিময়ে তোমায় কিছুই দিতে পারি নি। আমি এ বছর নারী দিবসে তোমার জন্মদিনের আগের দিন, তোমার মঙ্গল প্রার্থণায় নিজের টাকায় এতিমদের শিক্ষা উপকরণ উপহার দিয়েছি। আমৃত্যু এই কাজটা আমি করে যাবো নিজের টাকায়। তোমার জন্য তিনটা বই কিনেছিলাম সেই ২০১৭ সালে। আমার আফসোস, তোমায় উপহার দিতে পারি নি তখন। রাগে ক্ষোভে বইগুলো জলে ফেলে দিয়েছিলাম।

প্রিয়দেবী, আমি তোমার কাছে কবিতা গান গল্প আর উপন্যাসের মতোই ছিলাম। আমি আজ এই খোলা চিঠির মাধ্যমে তোমায় কথা দিচ্ছি, আমি শেষ নিঃশ্বাসের আগ মুহূর্ত পর্যন্ত তোমার কাছে ও সবার কাছে কবিতা গান গল্প আর উপন্যাসের মতোই থেকে যাবো। আমি সাহিত্যের মতোই মরে যাবো যেহেতু সাহিত্যে বেঁচে থাকা শিখেছি তোমার মায়াবী চোখের স্বর্গীয় ইশারায়।আমি তুমি ছাড়া আর কাউকে ভালোবাসতে পারবো না। হ্যাঁ, এটা ঠিক, আমি জোছনায় ভেসে চলা অমানুষ, চলতি পথে অসংখ্যবার হাত বদল হলেও কেউ নিতে পারবে না তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা, কেউ না। সবাই সাময়িক, তুমিই অনন্ত প্রিয়দেবী। তুমি যে আমায় দেবতা হবার পথ দেখিয়েছো, তুমি যে করেছো আমাকে অসীম জোছনার মুসাফির। আমি তুমি ছাড়া অন্য কোনো মেয়ের আবেগে ভেসে একটি লাইনও রচনা করতে পারি নি পারি না পারবো না, তুমি আমার অশেষ অনুপ্রেরণা। তুমি আমার জীবনের স্বরস্বতী দেবী। মহাপৃথিবীর চোখে তুমি নারী হলেও আমার চোখে তুমি দেবী৷ আজ আমার জীবনের বিশেষ স্বরণীয় দিনে আমার অবিরাম নিরব ভালোবাসা নিও প্রিয়দেবী। তোমাকে বলছি — Never develop yourself as a women but as a human being. Metaphysical love will keep us alive. Love has no religious identity. I loved you. I love you. I’ll love you. Love will keep us alive forever.

প্রিয়তমা, আমি তোমার জ্বলন্ত চিতায় জীবন্ত পুড়ে মরতে চাই।
প্রিয়দেবী, আমি তোমায় কবিতা আর গানের মতোই ভালোবেসে যেতে চাই।
প্রিয়তমা, আমি গল্পের মতোই ভালোবেসে যেতে চাই।
প্রিয়দেবী, আমি তোমায় উপন্যাসের মতোই ভালোবেসে চাই।
প্রিয়তমা, আমি তোমার জন্য আমৃত্যু প্রতীক্ষা করে যাবো, কারও সাথে জীবন জড়াবো না স্থায়ীভাবে।
প্রিয়দেবী, আমার আজকের এই বিশেষ দিনে তোমায় কথা দিচ্ছি, আমি তোমার প্রতি ভালোবাসার প্রতিটি বিন্দুকে সোনালী আভায় রূপান্তরিত করবো; তুমিই আমার জীবনের প্রথম ও শেষ ভালোবাসা।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
সেহরির শেষ সময় - ভোর ৪:০৯
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৩৯
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:১৪
  • ১২:০৭
  • ৪:৪০
  • ৬:৩৯
  • ৭:৫৮
  • ৫:৩১