সাভার বাড়াইপাড়া ও শিমুলতলায় অজ্ঞাতনামা লাশ উদ্ধার।

মোঃ আহসান হাবীব, সাভার প্রতিনিধিঃ

সাভার বাড়ইপাড়া নামক স্থানে থেকে নারীসহ অজ্ঞাতনামা দুজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১২টার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন সাভার হাইওয়ে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাজ্জাদ করিম ও আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম।

এর আগে শনিবার দিবাগত রাতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের শিমুলতলা এলাকা থেকে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ ও রোববার সকালে আশুলিয়ার বাড়ইপাড়া এলাকার একটি পুকুর থেকে লাগেজবন্দী নারীর মরদেহ উদ্ধার করেন পুলিশ।

নিহত ব্যক্তিদের বিস্তারিত নাম-পরিচয় জানতে পারেনি পুলিশ। তবে তাদের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশ কর্মকর্তারা।

পুলিশ জানায়, শনিবার (২০ ফেব্রয়ারি) রাত দেড়টার দিকে সাভারের শিমুলতলা এলাকার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশে আনুমানিক ৩১ বছরের অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মরদেহ দেখতে পান পথচারীরা। পরে সাভার হাইওয়ে পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় ব্যক্তিদের দাবি, নিহত ব্যক্তি মানুষিক প্রতিবন্ধী ছিলেন। বেশ কয়েক দিন হলো ওই এলাকায় ঘোরাফেরা করতেন। সড়ক পারাপারের সময় কোনো পরিবহনের নিচে চাপা পড়ে থাকতে পারেন তিনি। তবে ইনভেস্টিগেশন চলছে সেই পরিবহনের, লাশটির ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দীতে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে সাভারের আশুলিয়ায় লাগেজবন্দী অজ্ঞাতনামা এক নারীর (২৫) মরদরহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, সকালে ওই এলাকার পুকুরে একটি লাল রঙের লাগেজ ভাসতে দেখেন স্থানীয় ব্যক্তিরা। পরে লাগেজটি পুকুর থেকে তুলে দেখেন ভেতরে এক নারীর মরদেহ। পরে তারা আশুলিয়া থানায় খবর দিলে নারীর মরদেহ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। পুলিশের ধারণা, ওই নারীকে কোথাও হত্যা করে লাগেজবন্দী করে ওই পুকুরে ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম জানান, নারীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে নিহত নারীর নাম-পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।