DoinikAstha Epaper Version
ঢাকাবৃহস্পতিবার ২০শে জুন ২০২৪
ঢাকাবৃহস্পতিবার ২০শে জুন ২০২৪

আজকের সর্বশেষ সবখবর

ইবি গ্রন্থাগার প্রতিদিন খোলা রাখার দাবীতে স্বারকলিপি প্রদান

Abdullah
মে ১৭, ২০২৩ ৭:৩৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ইবি গ্রন্থাগার প্রতিদিন খোলা রাখার দাবীতে স্বারকলিপি প্রদান

 

শাহিন রাজা/ইবি প্রতিনিধিঃ

সপ্তাহব্যাপী ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগার খোলা রাখার দাবীতে স্বারকলিপি প্রদান করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সংসদ। আজ বুধবার (১৭ মে) দুপুর ২টার দিকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়ন স্মারকলিপি প্রদান করেন।

স্বারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়-সপ্তাহে সাত দিন লাইব্রেরি খোলা রাখা, ব্যক্তিগত বই নিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রবেশের সুযোগ দান, অন্তত এক সপ্তাহের জন্য বই ইস্যু করার সুযোগ দেওয়া ও থেমে যাওয়া ডিজিটালাইজেশন প্রক্রিয়া পুনরায় শুরু করা।

 

এ সময় ভারপ্রাপ্ত গ্রন্থাগারিক এস এম আব্দুল লতিফ বলেন, আমরা ডিজিটালাইজেসনের কাজ পুনরায় চালু করতে পারলে প্রত্যেক ছাত্রছাত্রীদেরকে ডিজিটাল আইডিকার্ড দিতে পারবো এবং তারা এর সুবিধা নিতে পারবে।

 

তিনি আরও বলেন, লাইব্রেরি নিচ তলায় একটি ছোট রুম বরাদ্দ আছে। ছাত্রছাত্রীরা ব্যাক্তিগত বই নিয়ে এসে সেখানে পড়তে পারে। আর এই লাইব্রেরি দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলা অর্থাৎ দুইটি তলাই আইকিউএসি অফিস জায়গা নিয়ে বসে আছে। আমি লাইব্রেরিয়ান অথচ তারা আমাকে ছাদে যাওয়ার অনুমতি দেয় না। যার ফলশ্রুতিতে লাইব্রেরির ছাদে পানি জমে থাকার কারণে চারতলার বহু বই ভিজে নষ্ট হয়ে গেছে। আমার দাবি যেহেতু এসময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক ভবন তৈরি হচ্ছে। যদি আইকিউএসি অফিসকে এখান থেকে স্থানান্তর করা হয়। তাহলে নিচ তলার ডিজিটাল ল্যাবটিকে উপরে স্থানান্তর করলে নিচে যে জায়গা হবে সেখানে ২০০ ছেলে-মেয়ে ব্যাক্তিগত বই নিয়ে এসেও পড়তে পারবে।

 

আর একসপ্তাহ বই নেয়ার ইস্যুতে গ্রন্থাগারিক বলেন, বই কেনার জন্য বরাদ্দ ৩৬লক্ষ টাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৬টি ডিপার্টমেন্টেই দেয়া হয় মিনিমাম দুইকপি বই কেনার জন্য দিয়ে থাকে। এক কপি কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে জমা দিতে হয় আরেক কপি বিভাগগুলো তাদের সেমিনার লাইব্রেরিতে রাখে। কিন্তু আটটি বিভাগ এ অর্থ নিয়ে থাকলেও এখন পর্যন্ত বই দিতে পারে নি। যার ফলে অনেক বই এখানে নেই।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৪১
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৫১
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬
  • ১২:০২
  • ৪:৩৮
  • ৬:৫১
  • ৮:১৭
  • ৫:১০