সাংবাদিকের একাল সেকাল

সাংবাদিকের একাল সেকাল

আবু নাসের সিদ্দিক তুহিন

এখন সময় যেমন তেমন
হুক্কাহুয়ার যুগ,
সাংবাদিকতায় নাম লেখাচ্ছে
মূর্খ্য এবং ভুগ।

ব কলমের বেকুব গুলো
ডেক্সে কিযে করে
তাইতো এসব আবোলতাবোল
কাকে কখন ধরে।

সাংবাদিকতা এতোই সোজা
হুক্কাহুয়া ডাকলে,
ডেক্স টেবিলের উপরে নিচে
হয়তো কিছু রাখলে।

কেযে কখন বলছে এসে
ওমুক চ্যানেল পত্রিকা,
আইডি কার্ডের ভিরে এখন
হচ্ছে টিপি টত্রিকা।

ইংরেজিতে ই জানে না
সেইতো প্রতি নিধি,
সাংবাদিকের স জানে না
বুঝুন গতি বিধি।

ডান্ডি কাঁধে ঝুলিয়ে কিছু
অমুক তমুক টিভি,
নাইবা পারুক লেখালেখি
আসল টাকা সিভি।

লক্ষ টাকায় পদটা কেনেন
প্রেস লাগিয়ে ঘুরেন,
কোথাও গেলে গন্ধ শুঁকে
টাকার আশায় খুঁড়েন।

আগে ছিলো সম্মানী কাজ
এখন ভেলকি বাজি,
যদি থাকে পকেট ফুটো
বুঝুন কিসের পাজি।

মফস্বলের সহজ সরল
দক্ষ লেখক যারা,
লাখো টাকায় কে কিনবে
স্বচ্ছ নিখুঁত তারা।

ইজ্জত আর বড় কাজে
এই পেশাটার নাম,
সাংবাদিকের মানসম্মান
জনগণের টান।

গায়ের সাথে ধাক্কা খেলেও
বলছে আমি প্রেস,
সাংবাদিকতায় খুব স্বচ্ছ
লাগবে ভিষণ ফ্রেস

আরো পড়ুন :  গাইবান্ধার বোয়ালির স্কুলের বাজার রাস্তায় ব্রিজ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলেন হুইপ গিণি