জান্নাতের চাবি

11

লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ অর্থাৎ আল্লাহ ছাড়া কোনো উপাস্য নেই, এটি হলো একাত্মবাদের মূল কথা। আল্লাহ এক এবং তাঁর কোনো শরিক নেই, এ তত্ত্ব স্পষ্ট করা হয়েছে কলমায়। লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ হলো জান্নাতের চাবি। এ কলমা ছাড়া জান্নাতে প্রবেশের অনুমতি মিলবে না। হজরত জায়েদ ইবনে আরকাম (রা.) রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে বর্ণনা করেন, ‘যে ব্যক্তি ইখলাসের সঙ্গে লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ বলে সে জান্নাতে প্রবেশ করবে।’ কেউ জিজ্ঞাসা করল, কলমার ইখলাস (এর আলামত) কী? রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করলেন, ‘তাকে হারাম কাজগুলো থেকে বাধা প্রদান করে।’

মুজামুল আওসাত, মুজামুল কাবির, নাওয়াদিরুল উসুল।

‘রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের জমানায় এক যুবকের ইন্তেকাল হচ্ছিল। লোকেরা রসুলের কাছে আরজ করল, এই যুবক কলমা উচ্চারণ করতে পারছে না। রসুলুল্লাহ যুবকের কাছে তশরিফ নিয়ে গেলেন এবং তাকে জিজ্ঞেস করলেন, কী হয়েছে? সে বলল, ইয়া রসুলুল্লাহ! আমার দিলের ওপর যেন একটি তালা লেগে আছে। অনুসন্ধানের পর জানা গেল যুবকের ওপর তার মা অসন্তুষ্ট; সে মাকে কষ্ট দিয়েছে। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার মাকে ডেকে জিজ্ঞেস করলেন, কোনো ব্যক্তি যদি বিরাট অগ্নিকু- তৈরি করে তাতে তোমার ছেলেকে নিক্ষেপ করতে উদ্যত হয় তবে তুমি কি তাকে বাঁচানোর জন্য সুপারিশ করবে? সে আরজ করল হ্যাঁ, ইয়া রসুলুল্লাহ! করব। রসুলুল্লাহ বললেন, যদি তাই হয় তবে তোমার এই ছেলের অন্যায়কে ক্ষমা করে দাও। সে ক্ষমা করে। এরপর যুবককে কলমা পড়তে বলা হলে তৎক্ষণাৎ কলমা পড়ে নিল। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহর শোকর আদায় করলেন যে তার অসিলায় যুবকটি দোজখের আগুন থেকে রক্ষা পেল।’ বায়হাকি, মুসনাদে আহমদ।

‘একবার রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম খুতবা পাঠ করলেন এবং তাতে তিনি ইরশাদ করলেন, যে ব্যক্তি কোনোরূপ ভেজাল না করে লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ বলবে তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যাবে। হজরত আলী (রা.) আরজ করলেন, ইয়া রসুলুল্লাহ! এটি বুঝিয়ে দিন যে ভেজাল করার অর্থ কী? তিনি ইরশাদ করলেন, দুনিয়ার মহব্বত এবং তার তালাশে লেগে যাওয়া। বহু লোক এমন আছে যারা কথা বলে নবীগণের মতো; কিন্তু কাজ করে অহংকারী ও অত্যাচারী লোকদের মতো। যদি কেউ এ কলমা উক্তরূপ কোনো কাজ না করে পড়ে তবে তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব।’ কানজুল উম্মাল, নাওয়াদিরুল উসুল তাফসিরে কুরতুবি।

আল্লাহ আমাদের সবাইকে ইখলাসের সঙ্গে লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ কলমায় একাত্ম হওয়ার তৌফিক দান করুন।