মামুনূল হককে নিয়ে ফেসবুকে আপক্তিকর ষ্ট্যাটাস, সুুুনামগঞ্জে যুবলীগ নেতা আটক

137
নিজস্ব প্রতিবেদক: হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ন মহাসচিব মামুনুল হককে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক নারীর ছবি সংবলিত আপক্তিকর ষ্ট্যাটাস পোষ্ট করায় এমাদ আহমেদ জয় নামে এক যুবলীগ নেতাকে আটক করেছেন পুলিশ।
রোববার দুপুরে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানা পুলিশ তাকে আটক করে। এমাদ উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের ভোলাখালী গ্রামের প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা জজ মিয়ার ছেলে ও ইউনিয়ন যুবলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক।
রোববার বিকেলে থানার ওসি মো. আব্দুল লতিফ তরফদার বলেন, গণ বিশৃংখলা ও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ওই যুবককে আটক করে আপাতত পুলিশী হেফাজতে নেয়া হয়েছে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ওসি আরো বলেন ,রবিবার দুপুরে আলেমা সমাজের নেতৃস্থানীয়দের নিয়ে থানায় মতবিনিময় করি।
এ নিয়ে পরবর্তীতে যে কোন ধরণের বিশৃংখলা এড়াতে নিজ নিজ অবস্থান হতে সবাই সহোগীতা করবেন বলে পুলিশকে আশ^স্থ্য করেছেন।, রোববার বিকেলে ইসসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ তাহিরপুর উপজেলা শাখার সভাপতি এম সালমান আহমদ সুজন বলেন,শনিবার বিকেলে কথিত এক নারীর ছবির সাথে হেফাজত নেতা প্রখ্যাত আলেম মামুনুল হকের ছবি যুক্ত করে অশ্লীল ও আপক্তির মন্তব্য জুড়ে এমাদ তার নিজের ফেসবুক আইডিতে একটি ষ্ট্যাটাস পোষ্ট করেন।
এ নিয়ে আলেম সমাজ ও হেফাজত অনুসারীদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিলে বিষয়টি থানা পুলিশেকে অবহিত করা হয়। পরবর্তীতে রোববার বেলা পৌনে দুটার দিকে থানা পুলিশ উপজেলার বাদাঘাট বাজারের বাদাঘাট –সুনামগঞ্জ সড়ক হতে এমাদকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
প্রসঙ্গত, শনিবার নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও এ রয়েল রিসোর্টে আমিনা তৈয়ব নামে দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে ঘুরতে গিয়ে একটি কক্ষে অবরুদ্ধ হয়েছিলেন হেফাজত ইসলামের যুগ্ন মহাসচিব মামনুল হক।