একাধিক দুরন্ত ফিচার আনল টেলিগ্রাম

104

হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প হিসেবে টেলিগ্রাম ব্যবহার শুরু করেছে অনেকে। প্রাইভেসি পলিসিতে পরিবর্তন আনা হবে, এমন ঘোষণার পরই হোয়াটসঅ্যাপ থেকে মুখ ফেরানো শুরু হয়। আর সেই শূন্যস্থান দখলে মাঠে নেমেছে টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল।

গত কয়েক মাসে এই দুটি অ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা একলাফে অনেকটাই বেড়ে গেছে। তবে সিগন্যালের থেকেও ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেশি টেলিগ্রামের। এমনকি ইতোমধ্যে অ্যাপটি প্লে-স্টোরে সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া অ্যাপের তালিকায় এক নম্বরেও উঠে এসেছে।

কয়েক মাস আগেই ব্যবহারকারীদের জন্য ‘ডিসঅ্যাপিয়ারিং মেসেজেস’ নামে একটি ফিচার চালু করে হোয়াটসঅ্যাপ। যেখানে এই ফিচারটি কেউ চালু করলে ব্যক্তিগত বা গ্রুপ চ্যাটে পাঠানো মেসেজ সাতদিনের বেশি থাকবে না। সাতদিন হয়ে গেলে এমনিই মুছে যাবে।

প্রায় একই রকম ফিচার এবার এনেছে টেলিগ্রামও। সম্প্রতি সেই ঘোষণাই দিয়েছে সংস্থাটি। তবে টেলিগ্রাম ব্যবহারকারীরা চাইলে এই মেসেজ মুছে যাওয়ার সময়সীমা একদিনও রাখতে পারবেন। আবার চাইলে সেই সময়সীমা সাতদিনও করতে পারবেন।

ফিচারটি ব্যবহার করতে হলে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদে প্রথমে ‘ক্লিয়ার হিস্টরি’ অপশনে যেতে হবে। তারপর সেটার ডিউরেশন (২৪ ঘণ্টা না সাতদিন) বেছে নিতে হবে।

টেলিগ্রাম কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই ফিচার ছাড়াও টেলিগ্রামের নতুন হোম স্ক্রিন ‘widget’ এসেছে, যার সাহায্যে সহজেই ব্যবহারকারীরা অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া বিভিন্ন গ্রুপে সদস্য সংখ্যা এখন থেকে যতখুশি রাখা যাবে।