হারানো ফোনের খোঁজ জানবেন যে ভাবে

অনলাইন ডেস্কঃ

রাস্তা দিয়ে যাচ্ছেন, হঠাৎ পকেটে হাত দিয়ে দেখলেন স্মার্টফোনটি নেই। অথবা মনের ভুলে কোথাও রেখে এসেছেন, কিন্তু খোঁজ আর পাচ্ছেন না দামি প্রিয় মোবাইল ফোনটির। কিংবা জানালার পাশ থেকে হঠাৎ করে উধাও হয়ে গেছে প্রয়োজনীয় মোবাইল ফোনটি। এমন বিপত্তিকর ঘটনা অনেকের জীবনেই ঘটে। এমন ঘটনায় আর চিন্তা নেই। হারিয়ে যাওয়া মুঠোফোনের খোঁজ জানাবে ‘থিফগার্ড’।

দেশের তরুণদের গড়ে তোলা সফটালজি লিমিটেড নামের প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান চালু করেছে অ্যাপটি। প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. সাইদুর রহমান ঢাকা পোস্টকে বলেন, ইতোমধ্যে সাভারের মুফতি আবুল বাশার নামের একজন আমাদের এই অ্যাপটি ব্যবহার করে তার হারিয়ে যাওয়া ফোনের খোঁজ পেয়েছেন।

মোবাইল ফোন চুরি করে নিয়ে গেলেও চোর বন্ধ করতে পারবে না উল্লেখ করে তিনি জানান, মোবাইল ফোনে থাকা সিম যদি চোর পরিবর্তন করে সেই নতুন নম্বর পেয়ে যাবেন ফোনের প্রকৃত মালিক। যার ফোন তার অনুমতি ছাড়া অন্য কেউ ডিভাইসে থাকা কোনো ডেটা ব্যবহার করতে পারবেন না। গ্রাহকদের ভালো মানের সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশে এই প্রথম এ ধরনের কোনো প্রযুক্তি চালু হলো।

যা করতে হবে : মোবাইল হ্যান্ডসেট চুরি বা হারিয়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে যেকোনো স্মার্টফোন বা কম্পিউটার থেকে www.thiefguardbd.com ওয়েবসাইটে গিয়ে ইউজার নাম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে। লগইন করে চুরি হওয়া মোবাইল ফোনের ক্যামেরা চালু করা যাবে। এরপর থেকে মোবাইল ফোনটি দিয়ে ছবি তোলা ও সংগ্রহ করা যাবে। এ সময় জিপিএস চালু করলে কোথায় আছে মোবাইল ফোনটি তা জানা যাবে।

১৩টি ফিচার নিয়ে তৈরি করা অ্যাপটির অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো- ফোনের মালিক হারিয়ে যাওয়া ফোনের স্ক্রিন লক করতে পারবেন। যেকোনো সময় ভাইরাস স্ক্যানসহ একাধিক কাজ করতে পারবেন। যেকোনো জায়গায় যেকেউ পকেট থেকে ফোনটি বের করতে চাইলে সাইরেন বেজে উঠবে। মজার বিষয় হলো, ফোনটি টেবিলে বা চার্জে দিয়ে অন্য কোথাও থাকলে এবং সেসময় কেউ ওই ফোন চার্জ থেকে খুলতে চাইলে সঙ্গে সঙ্গে সাইরেন বেজে উঠবে। আর এই সাইরেন (অ্যালার্ম) বাজতেই থাকবে যতক্ষণ পর্যন্ত সঠিক প্যাটার্ন দিয়ে নির্দিষ্ট অপশনে গিয়ে বন্ধ না করা হবে।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. সাইদুর রহমান ঢাকা পোস্টকে বলেন, বর্তমানে একটি স্মার্ট ফোন আসলে ব্যক্তিগতসহ অনেক তথ্যের ভাণ্ডার। ছবি, মোবাইল নম্বর, ভিডিও, অফিস ও ব্যক্তিগত ডকুমেন্টসহ অনেক কিছু জমা থাকে প্রিয় ফোনটিতে। দরকারি এ ফোনটি হারিয়ে গেলে কিন্তু সব শেষ হয়ে যায়। এই সব শেষ হয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করবে অ্যাপটি।

তিনি জানান, এই অ্যাপ ব্যবহার করলে নির্ভয়ে ফোন ব্যবহার করা যাবে। সুরক্ষিত থাকবে ব্যক্তিগত তথ্য, ফোন নম্বর ও প্রয়োজনীয় সব কিছু। অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড ৭ থেকে যেকোনো ভার্সনে ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহকেরা। এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানা যাবে www.thiefguardbd.com ওয়েবসাইটে।