DoinikAstha Epaper Version
ঢাকাশুক্রবার ১২ই জুলাই ২০২৪
ঢাকাশুক্রবার ১২ই জুলাই ২০২৪

আজকের সর্বশেষ সবখবর

হাসপাতালের বিছানায় শিশু প্রস্রবা করায় রোগীর নাম কর্তনের অভিযোগ

News Editor
অক্টোবর ১৪, ২০২০ ৫:১২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মোঃ আমির হোসেন, বিশেষ প্রতিনিধি: ঝালকাঠির রাজাপুরে ৯ মাসের শিশু মেডিকেলের বিছানায় প্র¯্রাব করায় শিশুটির মা রজিনাকে মারদর ও রোগী শিশুটির বাবা মোঃ গিয়াস হাওলাদর এর নাম কর্তন করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার রাত পোনেনয়টা দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিএইচএ মো. আবুল খায়ের মাহমুদ রাসেল কর্তৃক এ ঘটনা ঘটে। গিয়াস পার্শ্ববর্তী ভান্ডারিয়া উপজেলার মাটিভাঙ্গা এলাকার রশিদ হাওলাদার এর পুত্র।

রাজাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে অসুস্থ্য রোগীর নাম কেটে দেয়ার পরে তার রাত সোয়া ৯টায় রাজাপুর প্রেসক্লাবে এসে এসব অভিযোগ করেন। শিশুটির মা রজিনা বেগম জানায়, অসুস্থ্য অবস্থায় তার স্বামী গিয়াস হাওলাদরকে গত ১০ সেপ্টেম্বর মেডিকেলে ভর্তি করেন। মঙ্গলবার রাতে তার স্বামী বেশি অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তিনি পাশের বেডে শিশুটিকে রেখে ডাক্তার ডাকতে যায়।

সাতক্ষীরা মেডিকেলে জরুরি বিভাগের চালুর দাবিতে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সংবাদ সম্মেলন

এ সময় শিশুটি ঐ বেডে প্র¯্রাব করে দেয়। ডাক্তার আবুল খায়ের মাহমুদ রাসেল রোগীর কাছে আসলেও রোগীর সমস্যা না দেখেই শিশুটি কেন বিছানায় প্র¯্রাব করেছে এর কৈফিয়ত জানতে শিশুটির মায়ের চুলের মুষ্ঠি ধরে শিশুটির বুকের ওপরে ঠাসা দেয়। পরে ডাক্তার আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ঐ রাতেই অসুস্থ্য রোগীর নাম কেটে মেডিকেল থেকে বের করে দেয়। রজিনা ঐ রাতে তার অসুস্থ্য স্বামীকে নিয়ে কিভাবে বাড়িতে যাবে এই ভেবে কেঁদে ফেলে। তখনও তার স্বামী ব্যাথায় কাতরাচ্ছিল।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত টিএইচএ মো. আবুল খায়ের মাহমুদ রাসেল এর কাছে জানতে চাইলে তিনি মারধরের ঘটনাটি অস্বীকার করে বলেন, ঐ রোগীকে তিনদিন চিকিৎসা দিয়েছি এবং সকল প্রকার ঔষধ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সরবরাহ করেছি। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেলে প্রেরনের কথা বললে এ গুজব রটায়। একজন ডাক্তারের বিরুদ্ধে মিথ্যা গুজব রটানো হীন মানষীকতার পরিচয়।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৪৯
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৫৩
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৪
  • ১২:০৭
  • ৪:৪৩
  • ৬:৫৩
  • ৮:১৮
  • ৫:১৮